মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

এক নজরে

ইতিহাস

আমদানি ও রপ্তানি যুগ্ম নিয়ন্ত্রকের দপ্তরে স্বাগত

          প্রথমেই সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় সম্পর্কে জানা যাক, এ দপ্তরটি বানিজ্য মন্ত্রণালয়াধীন আমদানি ও রপ্তনি নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর এর খুলনা বিভাগীয় দপ্তর। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের একটি গুরুত্বপূর্ণ ও স্পর্শকাতর মন্ত্রণালয়। স্বাধীনতা উত্তর বাংলাদেশে ১৯৭২ খ্রিস্টাব্দে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের যাত্রা শুরু হয়। ১৯৮১ খ্রিস্টাব্দে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে বাণিজ্য বিভাগ ও বৈদেশিক বাণিজ্য বিভাগ নামে দু’টি বিভাগে বিভক্ত করা হয়। ১৯৮২ খ্রিস্টাব্দে শিল্পের সাথে একীভূত হয়ে শিল্প ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয় হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। সে সময় বাণিজ্য বিভাগ, শিল্প বিভাগ এবং পাট বিভাগ এ মন্ত্রণালয়ের আওতাভুক্ত করা হয়। ১৯৮৫ খ্রিস্টাব্দ থেকে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় হিসেবে পুনঃকার্যক্রম শুরু হয়। ১৯৫৬-৫৭ খ্রিস্টাব্দে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান অন্যান্য মন্ত্রণালয়ের সাথে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।  

 

         সরকারি কার্যপ্রণালী বিধিতে বাণিজ্য এবং বাণিজ্যর সাথে সম্পর্কিত ৩১ ধরণের কাজকে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের আওতাভুক্ত করা হয়েছে। এ কাজগুলো মূলতঃ অভ্যন্তরীণ ব্যবসা-বাণিজ্য চলমান রাখা এবং সম্প্রসারণে সহায়তা, আমদানি বাণিজ্যকে নিয়ন্ত্রণ করা, দ্রব্যমূল্য পরিস্থিতি স্বাভাবিক ও সহনীয় পর্যায়ে রাখা, পণ্য ও সেবা রপ্তানির বাজার সম্প্রসারণ, আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের সাথে সম্পর্কিত বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার সাথে যোগাযোগ ও রপ্তানির স্বার্থে  দরকষাকষি করা, ব্যবসা সংক্রান্ত দ্বিপাক্ষিক ও বহুপাক্ষিক চুক্তি সম্পাদন, পণ্যের ট্যারিফ নির্ধারণ, বাণিজ্য সংক্রান্ত গবেষণা কার্যক্রম, তথ্য-উপাত্ত সংরক্ষণ, বিসিএস (ট্রেড) ক্যাডার কর্মকর্তাদের প্রশাসনিক নিয়ন্ত্রণ ইত্যাদি। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপর অর্পিত এ সকল কার্যক্রম পরিচালনার জন্য বেশ কয়েকটি অধীনস্থ দপ্তর/সংস্থা রয়েছে। যার মধ্যে আমদানি ও রপ্তনি যুগ্ম নিয়ন্ত্রকের দপ্তর একটি । এছাড়া সকল দপ্তরগুলো নিম্নরুপঃ

 

  • রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো
  • বাংলাদেশ ট্যারিফ কমিশন
  • আমদানি ও রপ্তানি প্রধান নিয়ন্ত্রকের দপ্তর
  • জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর
  • যৌথমূলধন কোম্পানী ও ফার্ম সমূহের নিবন্ধকের কার্যালয়
  • বাংলাদেশ চা বোর্ড
  • ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ
  • বাংলাদেশ ট্যারিফ কমিশন
  • বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিল
  • কম্পিটিশন কমিশন
  • বাংলাদেশ ফরেন ট্রেড ইনস্টিটিউট
  • দি ইনস্টিটিউট অব কস্ট এন্ড ম্যানেজমেন্ট এ্যাকাউন্টস অব বাংলাদেশ
  • দি ইনস্টিটিউট অব চার্টাড এ্যাকাউন্টস অব বাংলাদেশ

রূপকল্প (Vision): বিশ্ব বাণিজ্যে উল্লেখযোগ্য প্রতিযোগিতামূলক অবস্থান সৃষ্টি ।

 

অভিলক্ষ্য(Mission):ব্যবসা বান্ধব পরিবেশ সৃষ্টি,বাণিজ্য পদ্ধতির সহজীকরণ,রপ্তানি বৃদ্ধিতে সহায়তা প্রদান,রপ্তানি পণ্য ও বাজার বহুমূখীকরণ,বৈদেশিক বাণিজ্যে সক্ষমতা বৃদ্ধি, নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের সরবরাহ নিশ্চিতকরণ এবং দ্রব্যমূল্য স্থিতিশীল রাখার মাধ্যমে জাতীয় উন্নয়নে ভূমিকা রাখা।

 

নিজস্ব দপ্তরের সেবাসহ তথ্যঃ

The CCI&E plays a significant role in the trade policy formulation of Bangladesh. The main

objectives of the project are to promote the national trade and generate more revenue for

the government. By proper monitoring and supervising the rules and regulations of the trade

policy, government can improve imports and exports activities of the country.The Services

rendered by the CCI&E are important in the perspective of facilitation of trade which run thus:

 

1.Issuance of Industrial & Commercial Import Registration Certificate (IRC).

2.Issuance of Export Registration Certificate (ERC).

3.Issuance of Indenting Registration Certificate (Indenting RC).

4.Issuance of explanation regarding Import policy.

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter